শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০১৯

English Version

'দেশে ডায়াবেটিস রোগীর সংখ্যা দ্বিগুণ হয়েছে'

No icon সারা দেশের খবর

স্বাস্থ্য ডেস্ক ১১ জুলাই’১৯: স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন, দেশে ক্রমান্বয়ে বহুমূত্র (ডায়াবেটিক) রোগের সংখ্যা বাড়ছে। গত ২০১০ সালে এ রোগে আক্রান্ত হওয়ার ছিল ৩ দশমিক ৯ শতাংশ। গত আট বছরে তা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৮ দশমিক ৪ শতাংশ অর্থাৎ এ বৃদ্ধির হার দ্বিগুণের বেশি।

স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে সংসদের বুধবারের বৈঠকে টেবিলে উত্থাপিত প্রশ্নোত্তর পর্বে মহিলা এমপি নুরুন্নবী চৌধুরী শাওনের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ তথ্য জানান।

মন্ত্রী আরও বলেন, এ রোগ নিয়ন্ত্রণে বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা প্রদানের নিমিত্তে প্রয়োজনীয় ওষুধ সরবরাহ করা হয়েছে এবং চলমান।

এম. আবদুল লতিফের (চট্টগ্রাম-১১) প্রশ্নের জবাবে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, দেশে ভেজাল ও ফরমালিনমুক্ত খাবার গ্রহণ, ধূমপানসহ নানা কারণে প্রতিবছর ক্যান্সার রোগীর সংখ্যা বাড়ছে। কিন্তু সেই অনুপাতে ক্যান্সার চিকিৎসা ও হাসপাতাল কম হওয়ায় ক্যান্সার রোগী ও অভিভাবকগণ প্রতিনিয়ত দুর্ভোগের শিকার হচ্ছেন। এ থেকে ভুক্তভোগীদের লাঘবের জন্য ইতিমধ্যে দেশের বিভাগীয় শহরগুলোতে একটি করে আধুনিক চিকিৎসা সম্বলিত স্পেশাল ক্যান্সার হাসপাতাল প্রতিষ্ঠার উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে।

মো. মসিবুর রহমান রাঙ্গার প্রশ্নের জবাবে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেন, বিদেশি ওষুধ দেশীয় বাজারে বাজারজাতকরণের পূর্বে ওষুধ প্রশাসন অধিদফতর হতে আমদানিকৃত ওষুধের নিবন্ধন গ্রহণ করতে হয়।

তিনি বলেন, বিদেশি ওষুধের কার্যকারিতা পরীক্ষা করার ব্যবস্থা রয়েছে।

মো. মুজিবুর হকের প্রশ্নের জবাবে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, উপজেলা পর্যায়ে হাসপাতালগুলোতে আগুনে পোড়া রোগীদের জন্য আলাদা ওয়ার্ড, বার্ণ ইউনিট করিবার পরিকল্পনা আপাতত নেই। তবে, ঢাকা মেডিকেলে এ সংক্রান্ত রোগীর চাপ কমাতে ঢাকার বাইরে আপাতত ৫টি মেডিকেল কলেজে বার্ণ ইউনিট স্থাপন করার পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে।

শামীম হায়দার পাটোয়ারীর প্রশ্নের জবাবে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, আইপিইউ সম্মেলনের সমাপনী ভাষণে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অঙ্গীকার করেছিলেন ২০৪০ সালের মধ্যে দেশ তামাকমুক্ত হবে। তার ওই অঙ্গীকার বাস্তবায়নে ওই সময়ের মধ্যে তামাক নির্মূল করতে চাই।

সর্বাধিক পঠিত খবর








পিঠের মেদ দ্রুত কমানোর তিন উপায়