রবিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮

English Version

প্রেসার লো হওয়ার কারণ ও প্রতিকার

No icon অামার ডাক্তার

স্বাস্থ্য ডেস্ক: ২০ আগস্ট’১৮: প্রেসার লো হওয়া বা রক্তচাপ কমে যাওয়াকে অনেকেই সাধারণ মনে করলেও এটা অতটা সাধারণ সমস্যা নয়। লো ব্লাড প্রেসারও ঝুঁকিপূর্ণ কিন্তু তা হাই ব্লাড প্রেসার অপেক্ষা নয়। তবে নিম্ন রক্তচাপ নিয়ে অযথা বা অতিরিক্ত চিন্তিত হওয়ার কিছু নেই। কেননা এটা স্বল্পমেয়াদী সমস্যা।

এছাড়া অনেকেই মনে করেন দুর্বল স্বাস্থ্যের অধিকারীরাই নিম্ন রক্তচাপে ভুগে থাকেন। এটা সত্য নয়। মোটা মানুষেরও নিম্ন রক্তচাপ বা লো প্রেসার থাকতে পারে। সাধারণত সিস্টোলিক রক্তচাপ ৯০ মি.মি. মার্কারি ও ডায়াস্টোলিক রক্তচাপ ৬০ মি.মি. মার্কারির নিচে হলে তাকে নিম্ন রক্তচাপ বলা হয়।

প্রেসার লো হওয়ার কারণ, লক্ষণ ও প্রতিকার

কোনো কারণে পানি শুন্যতা হওয়া।

ডায়রিয়া বা অত্যধিক বমি হওয়া।

খাবার ঠিকমতো বা সময়মত না খাওয়া।

ম্যাল অ্যাবসরবশন বা হজমে দুর্বলতা।

কোন দীর্ঘমেয়াদী রোগের আক্রান্ত থাকা।

শরীরে হরমোনজনিত ভারসাম্যহীনতা।

রক্তশুন্যতা।

কোন কারনে অতিরিক্ত রক্তক্ষরণ।

নিম্ন রক্তচাপের লক্ষণ

মাথা ঘোরা।

বসা বা শোয়া থেকে হঠাৎ উঠে দাঁড়ালে শারীরিক ভারসাম্যহীনতা।

হঠাৎ জ্ঞান হারানো।

অস্বাভাবিক দ্রুত হৃদস্পন্দন।

নিম্ন রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে করণীয়

নিম্ন রক্তচাপের ভুক্তভোগীরা অনেকক্ষণ একই স্থানে বসে বা শুয়ে থাকবেন না।

অনেকক্ষণ ধরে বসে বা শুয়ে থাকার পর উঠার সময় সাবধানে ও ধীরে ধীরে উঠুন।

ঘন ঘন হালকা খাবার খান। বেশি সময় খালি পেটে থাকলে রক্তচাপ আরো কমে যেতে পারে।

পর্যাপ্ত পরিমাণে পানি পান করুন।

খাবার সময় পাতে এক চিমটি করে লবণ খেতে পারেন।

দৈনন্দিন খাবারের তালিকায় গ্লুকোজ ও স্যালাইন রাখুন।

সর্বাধিক পঠিত খবর

পিসিওএস ও বন্ধ্যাত্ব

দরকার শুধু একটা চামচ! বোঝা যাবে কিডনি ...

জেনে নিন জরায়ু ক্যান্সারের লক্ষণসমূহ


অসুস্থ কিডনির লক্ষণ



একসঙ্গে ৪ সন্তানের জন্ম দিলেন গৃহবধূ!

আকন্দের যত ঔষুধী গুণ

রাতে কলা খাওয়া কি ঠিক?