শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০১৯

English Version

স্মৃতিশক্তি হারালেও ফিরে পাবেন যে নিয়মে

No icon আমার ডাক্তার

স্বাস্থ্য ডেস্ক ০৯ জুলাই’১৯: স্মৃতিশক্তি কমে যাওয়া কিংবা হারানোর ঘটনায় আমরা নিজেরাও কম দায়ী নই। প্রযুক্তির কল্যাণে আমরা একটি ফোন নম্বরও মুখস্থ রাখি না, মনে রাখি না জন্মদিন, বিবাহবার্ষিকী বা অফিসে জরুরি বৈঠকের তারিখ। তার বদলে মোবাইলে অ্যালার্ম সেট করে রাখি।

রাস্তাঘাট মনে রাখার ঝামেলা থেকেও মুক্তি দিয়েছে বিভিন্ন অ্যাপ। স্মৃতিশক্তি ধরে রাখার সংশ্লিষ্ট কোষগুলো অকার্যকর হয়ে পড়ছে। সঠিক খাবার না খাওয়া ও শুয়ে-বসে থাকার অভ্যাসের ফলেও বাড়ছে এ সমস্যা।

এই সমস্যা থেকে মুক্ত নয় শিশুরাও। হাজার পড়ার ভিড়, কিন্তু মস্তিষ্ককে চাঙা রাখবে এমন উপায় হাতে আসছে কই? তবে স্মৃতিশক্তি যাতে আপনার ভেতর বজায় থাকে, তা জন্য কয়েকটি খাবারের হদিশ দিয়েছেন বিজ্ঞানীরা। খাবারগুলো নিয়ম করে খেলে ও একটু শরীরচর্চা করলে মনে রাখার ক্ষমতা বাড়তে বাধ্য৷

স্মৃতিশক্তি বাড়ানোর খাবার:

নিউরো সায়েন্সে প্রকাশিত এক গবেষণায় দেখানো হয়েছে, যেসব মোটা মানুষ ছয় মাস ধরে রেসভারেট্রল সাপ্লিমেন্ট খেয়েছেন, বড় তালিকায় লেখা নাম তাঁরা আধ ঘণ্ঢা পরেও বেশ মনে রাখতে পেরেছেন৷ আর যাঁরা খাননিস তাঁরা সে ভাবে পারেননি৷ রেসভারেট্রল প্রচুর পরিমাণে থাকে ডার্ক চকোলেটে। এবং এর আসল কাজ বয়স ধরে রাখা। তার পাশাপাশি মনে রাখার ক্ষমতা বাড়াতেও তার জুড়ি নেই৷

একই কাজ করে ডিএইচএ নামে ওমেগা-থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিড। মাছের তেলে যা ভরপুর থাকে। ফল বা শাকসবজির অ্যান্টিক্সিড্যান্টও কম যায় না।  বিজ্ঞানীরা দেখেছেন বয়স হলে মস্তিষ্কের তথ্য চালান করার ক্ষমতা যে কমতে থাকে, তার গতিবেগ থামাতে ও স্মৃতিশক্তি বাড়াতে এসব প্রাকৃতিক খাবার খুবই কার্যকর। গ্রিন টি'র অ্যান্টিঅক্সিডেন্টও এ ক্ষেত্রে কার্যকর।

যে খাবারগুলো আপনার সারা দিনের রুটিনে থাকা উচিত তা নিচে দেওয়া হলো:

দিনে দুই-তিনবার দুধ-চিনি ছাড়া গ্রিন টি পান করুন। এতে মনে রাখার ক্ষমতা বাড়বে, সহজ হবে বয়স ধরে রাখা।

দিনে দুইবার টাটকা ফল খান।

স্ন্যাক্স হিসেবে খান চার-পাচঁটি করে আমন্ড, আখরোট, কিসমিস।

দুপুরে খান মাছ ও টাটকা শাকসবজি। রাতেও তাই। সাথে চলতে পারে চিকেনও।

মাঝে মাঝে খান ডার্ক চকোলেট।

ডাক্তারের পরামর্শমতো রেসভারেট্রল সাপলিমেন্টও খেতে পারেন।

খোলা জায়গায় মর্নিং ওয়াক করুন। সাঁতার বা জগিংয়েও ফল পাবেন।

ডিপ ব্রিদিং, যোগা ও মেডিটেশন করে মন শান্ত রাখুন।

সর্বাধিক পঠিত খবর








পিঠের মেদ দ্রুত কমানোর তিন উপায়