রবিবার, ১৮ আগস্ট ২০১৯

English Version

ডেঙ্গু মোকাবেলায় প্রাণ উৎসর্গ করছেন চিকিৎসকগণ

No icon আমার ডাক্তার

স্বাস্থ্য ডেস্ক: ১০ আগস্ট’ ১৯: ডেঙ্গু মোকাবেলায় প্রাণ উৎসর্গ করলেন নয় চিকিৎসক। দেশে ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা প্রতিদিনই বাড়ছে। প্রায় সব শ্রেণি পেশার মানুষই রয়েছেন আক্রান্তের কাতারে।

যারা চিকিৎসা সেবা দিয়ে রোগিদের সারিয়ে তুলবেন, সেসব চিকিৎসকগনও আক্রান্ত হচ্ছেন ডেঙ্গুতে। বাংলাদেশ মেডিক্যাল এ্সোসিয়েশনের (বিএমএ) দেয়া তথ্যানুযায়ী এ পর্যন্ত ডেঙ্গুতে নয়জন চিকিৎসক মারা গেছেন।

মৃত চিকিৎসকদের মধ্যে কয়েকজন ডেঙ্গু রোগিদের চিকিৎসা দেয়ার সময় ডেঙ্গু রোগে আক্রান্ত হন। রোগির চিকিৎসায় জীবন পর্যন্ত উৎসর্গ করলেন এই চিকিৎসকরা। মাননীয় স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক ০৭ আগস্ট রাজধানীর মুগদা হাসপাতালে বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশন (বিএমএ) আয়োজিত এক সেমিনারে বলেন, ‘ডেঙ্গু রোগির চিকিৎসায় চিকিৎসকদের অবদান স্মরণীয় হয়ে থাকবে।’

২১ জুলাই রাতে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে রাজধানীর শহীদ সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে আনা হলে হবিগঞ্জ জেলার সিভিল সার্জন ডা. শাহাদাত হোসেন হাজরাকে (৫৩) মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা। ৩ জুন রাজধানীর উত্তরার কুয়েত-বাংলাদেশ মৈত্রী হাসপাতালের চিকিৎসক নিগার নাহিদ দিপু রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

চলতি বছরের ৭ আগস্ট পর্যন্ত ডেঙ্গুতে মোট আক্রান্ত হয়েছেন ৩২ হাজার ৩৪০ জন আর হাসপাতাল থেকে চিকিৎসা নিয়ে বাড়ি ফিরেছেন ২৩ হাজার ৬১০ জন। এদিকে প্রতি ঘণ্টায় গড়ে ১০০ জনের বেশি মানুষ ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হচ্ছে। প্রতিটি হাসপাতালে উপচে পড়ছে রোগি যার ফলে চিকিৎসকদের রীতিমত হিমশিম খেতে হচ্ছে।

ইতোমধ্যে, সারাদেশে ডেঙ্গু পরিস্থিতির ভয়াবহতা বিবেচনায় ঈদের ছুটি বাতিল করা হয়েছে। চিকিৎসকরা জীবনের ঝুঁকি নিয়ে ডেঙ্গু রোগিদের চিকিৎসায় নিরলস কাজ করছেন।

সর্বাধিক পঠিত খবর







৭ ঘণ্টার কম ঘুম আর নয়!

স্ট্রোকের প্রাথমিক তিন লক্ষণ


আঁচিল দূর করবেন যেভাবে