রবিবার, ২৬ জানুয়ারী ২০২০

English Version

টানা হরমোন থেরাপিতে ব্রেস্ট ক্যানসারের আশঙ্কা

বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীর ক্ষণগণনা
৬৪দিন
:
১১ঘণ্টা
:
৩৯মিনিট
:
৫৬সেকেন্ড
No icon আমার ডাক্তার

স্বাস্থ্য ডেস্ক: ০৪ সেপ্টেম্বর’ ১৯: টানা হরমোন রিপ্লেসমেন্ট থেরাপি করালে নারীদের ব্রেস্ট ক্যানসারের আশঙ্কা দেখা দেয় বলে তথ্য প্রকাশ করেছে আন্তর্জাতিক ল্যানসেট রিভিউ। রিপোর্ট বলছে, ওয়েস্ট্রোজেন থেরাপি থেকে একসঙ্গে ওয়েস্ট্রোজেন ও প্রোজেস্টোরেন থেরাপির ফলে বেশিমাত্রায় শরীরে বাসা বাঁধতে পারে মরণঘাতী ক্যানসার।

এক লাখ নারীর ওপর সমীক্ষা চালিয়ে দেখা যায়, হরমোন থেরাপির কারণে বেশিরভাগ নারীর ব্রেস্ট ক্যানসারের লক্ষণ দেখা গেছে। এই প্রথম বিজ্ঞানীরা আবিষ্কার করেছেন, পাঁচ বছরের কম মেনোপজাল হরমোন থেরাপি ব্যবহার করলে নারীদের ব্রেস্ট ক্যানসারের প্রকোপ বেশিমাত্রায় বৃদ্ধি পায়। অস্ট্রেলিয়ান ন্যাশানাল ইউনিভার্সিটির এপিডেমিওলজির প্রফেসর এমিলি ব্যাংকস যেমন জানিয়েছেন, অনেক চিকিৎসকই টানা পাঁচবছর ধরে হরমোন থেরাপির ওষুধ প্রেসক্রাইব করেন।

তারা এও বলেন, এতে পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া তো নেই, ব্রেস্ট ক্যানসারের জন্য অনেক নিরাপদ। এ তথ্যই ভুল প্রমাণ করে দিল এ সমীক্ষা।

টানা পাঁচ বছর ধরে এইচআরটির জেরে ৫০ বছর বয়সী নারীদের বেশি মাত্রায় ব্রেস্ট ক্যানসারের লক্ষণ দেখা গেছে। এর মধ্যে একসঙ্গে ওয়েস্ট্রোজেন ও প্রোজেস্টোরেন থেরাপিতে বেশি সংখ্যক নারীর মধ্যে দেখা গেছে এ মারণ রোগ। ৬০ জন নারীর মধ্যে ৫০ জনের শরীরেই মিলেছে ক্যানসার কোষ।

অন্যদিকে টানা কয়েক বছর হলেও শুধু ওয়েস্ট্রোজেন থেরাপির ফলে ২০০ নারীর মধ্যে একজনের শরীরে পাওয়া গেছে এ কর্কট কোষ।

তাই ব্রেস্ট ক্যানসারের আশঙ্কা দূর করতে নারীদের হরমোন থেরাপি বন্ধের কথা জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

সর্বাধিক পঠিত খবর






দেশে চিকিৎসা গবেষণা বাড়াতে হবে

ডিমেনসিয়া রোগীর আহার

জ্বর ঠোসা সারানোর সহজ উপায়