বৃহস্পতিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২০

English Version

অতিরিক্ত হেডফোন ব্যবহার বিপজ্জনক,তার জন্য যা করণীয়

বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীর ক্ষণগণনা
৬৪দিন
:
১১ঘণ্টা
:
৩৯মিনিট
:
৫৬সেকেন্ড
No icon আমার ডাক্তার

স্বাস্থ্য ডেস্ক: ১০ অক্টোবর’ ১৯: অনেকেই দিনের বেশিরভাগ সময় কানে হেডফোন গুঁজে রাখেন।বিশেষ করে রাস্তায় চলাচলের সময় কানে হেডফোন গুঁজে রাখা মোটেও ঠিক নয়। কারণ এটি সড়কদুর্ঘটনার অন্যতম কারণ।

বিশেষজ্ঞদের মতে, দীর্ঘ সময় হেডফোন ব্যবহারে নানা ধরনের শারীরিক সমস্যা হতে পারে।

আসুন জেনে নেই এমন কিছু সমস্যা -

১. হেডফোন ব্যবহার সময় ৯০ ডেসিবেল বা তার বেশি মাত্রার আওয়াজ সরাসরি কানে গেলে শ্রবণে সমস্যা হতে পারে।

২. হেডফোন কারও সঙ্গে ভাগাভাগি করে ব্যবহার করবেন না।এতে সংক্রমণ হওয়ার আশঙ্কা থাকে।

৩. বেশিরভাগ হেডফোন এয়ার-টাইট ধরনের। এ কারণে কানে বাতাস প্রবেশ করতে পারে না। এতে ঝুঁকি থেকেই যায়।

৪. এক গবেষণায় দেখা গেছে, হেডফোনে দীর্ঘ সময় উচ্চ শব্দে গান শুনলে সেটা খোলার পরও কিছুক্ষণ ভালোভাবে কানে শোনা যায় না।

৫. হেডফোন দিয়ে উচ্চ শব্দে গান শোনা ঠিক নয়। চিরতরে শ্রবণ শক্তি হারাতে পারেন।

হেডফোন গান শুনুন কিছু নিয়ম মেনে। এতে জীবন ও কান দুই-ই বাঁচবে। দীর্ঘ সময় হেডফোনের ব্যবহার করতে হলে কিছুক্ষণ বিশ্রাম নিতে হবে।

হেডফোন ব্যবহারের এমন কিছু নিয়ম, যা অন্তত কিছুটা হলেও আপনাকে বাঁচাবে শারীরিক ক্ষতি থেকে।

আসুন জেনে নেই এমন কিছু কৌশল-

১. যে সংস্থার মোবাইল ব্যবহার করছেন, ঠিক সেই সংস্থার, সেই মডেলটির হেডফোনই ব্যবহার করুন।

২. হেডফোনে গান শোনার সময় দেখে নিন ওই ভলিয়্যুমে বাইরের চিৎকার, আওয়াজ এ সবও কানে পৌঁছচ্ছে কি না। তা না হলে আওয়াজ আরও কমান।

৩. হাঁটার সময় বা রাস্তা-লাইন পেরনোর সময় হেডফোন ব্যবহার করবেন না।

৪. একটানা আধ ঘণ্টার বেশি হেডফোন ব্যবহার করবেন না। মোবাইলে কোনও সিনেমা দেখতে হলে আধ ঘণ্টা বিরতি নিন।

সর্বাধিক পঠিত খবর







করোনার ওষুধ আবিষ্কার, বাজারে ছাড়ার অনুমতি


রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে করণীয়

মোবাইল থেকেও ছড়াতে পারে করোনাভাইরাস!