সোমবার, ০৬ এপ্রিল ২০২০

English Version

দেশে এবার নতুন ভাইরাস এইচওয়ান এনওয়ান আতঙ্ক

বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীর ক্ষণগণনা
৬৪দিন
:
১১ঘণ্টা
:
৩৯মিনিট
:
৫৬সেকেন্ড
No icon আমার ডাক্তার

স্বাস্থ্য ডেস্ক- ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০: রাতে ঠান্ডা, দিনে ঝলমলে রোদ। আবহাওয়ার এমন বৈপরীত্বে মানুষের দেহেও দেখা দিতে পারে ভাইরাসজনিত নানা সমস্যা। এমনি এক ভাইরাস এইচওয়ানএনওয়ান, যা শিশু ও বয়স্ক ব্যক্তিদের বেশি আক্রান্ত করে।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, মৌসুম পরিবর্তনের এ সময়ে আতঙ্কিত না হয়ে, ব্যক্তিগত পরিচ্ছন্নতায় এ ভাইরাস থেকে শতভাগ মুক্তি সম্ভব।

এইচওয়ান এনওয়ান ভাইরাস, সোয়াইন ফ্লু ভাইরাসের সঙ্গে সাদৃশ্য থাকা ইনফ্লুয়েঞ্জার ভাইরাসের মতোই এক ধরনের ভাইরাস। চিকিৎসকরা বলছেন, ২০০৯ সালের পরে বাংলাদেশে সোয়াইন ফ্লুর অস্তিত্ব পাওয়া না গেলেও মানুষের দেহে এ ভাইরাসের উপস্থিতি পাওয়া যায়, যা এইচওয়ান এনওয়ান ভাইরাস নামে পরিচিত।

সাধারণত ফেব্রুয়ারি, মার্চের পরে আবহাওয়ার পরিবর্তন ঘটলে ইনফ্লুয়েঞ্জার জ্বরে আক্রান্ত হতে দেখা যায় নানা বয়সী মানুষের। তবে শিশু ও বয়স্ক মানুষের এ ভাইরাসে আক্রান্তের হার বেশি।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, জ্বর, কাশি, গলা ব্যথা, শরীরে ব্যথা, ঠান্ডার মতো উপসর্গ দেখা দিতে পারে ফ্লু হলে। ফ্লু আক্রান্ত ব্যক্তির কাছে থাকলে, তার ব্যবহৃত পাত্রে খাবার খেলে বা ওই ব্যক্তির কাপড় পড়লে ফ্লু ছড়ানোর সম্ভাবনা থাকে।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় ভাইরোলজী বিভাগীয় প্রধান ডা. সাইফ উল্লাহ মুন্সি বলেন, হিউম্যানের যে এইচওয়ান এনওয়ান সোইয়াইনের যে এইচওয়ান এনওয়ান দুইটার মধ্যে বহি সাদৃশ রয়েছে। একই রকমের লক্ষণ। ছোট এবং বয়স্কদের খেয়াল রাখতে হবে। তবে, স্বাস্থ্য বিভাগ বলছে, বছর জুড়েই দুই একজনের আক্রান্তের খবর পাওয়া গেলেও সরকারের কাছে এ ভাইরাসের পর্যাপ্ত প্রতিষেধক রয়েছে।

সর্বশেষ খবর

সর্বাধিক পঠিত খবর





চীনের পাঠানো চিকিৎসা সরঞ্জাম আসছে আজ