শুক্রবার, ০৫ জুন ২০২০

English Version

সবকিছু উপেক্ষা করে চিকিৎসক সমাজ হিরোর মতো করোনা যুদ্ধ মোকাবেলা করবে: বিএসএমএমইউ উপাচার্য

No icon আমার ডাক্তার

স্বাস্থ্যডেস্ক, ৩০ মার্চ ২০২০: বিভিন্ন সংগঠন ও ব্যক্তিগত উদ্যোগে পিপিই, হ্যান্ড স্যানিটাইজার প্রদান বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে করোনা রোগী সনাক্তকরণের পরীক্ষা-নিরীক্ষা প্রদান কার্যক্রম শীঘ্রই শুরু করা, করোনা রোগীদের চিকিৎসাসেবা প্রদান, সংশ্লিষ্ট চিকিৎসক-নার্সদের প্রশিক্ষণসহ তাঁদের সুরক্ষার ব্যবস্থাসহ নানা বিষয়ে শনিবার ডা. মিল্টন হলে একটি অতি গুরুত্বপূর্ণ জরুরি সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া।

সভায় উপ-উপাচার্য (শিক্ষা) অধ্যাপক ডা. সাহানা আখতার রহমান, উপ-উপাচার্য (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. মুহাম্মদ রফিকুল আলম, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ আতিকুর রহমান প্রমুখসহ সংশ্লিষ্ট সম্মানিত ডীনবৃন্দ, বিভিন্ন বিভাগের চেয়ারম্যানবৃন্দ, অধ্যাপকবৃন্দ, রেজিস্ট্রার, প্রক্টর, পরিচালক (হাসপাতাল) মহোদয় অংশ নেন।

সভায় করোনা ভাইরাস পরিস্থিতি মোকাবেলায় দ্রুত পরীক্ষা-নিরীক্ষা কার্যক্রম শুরু করা, রোগীদের সেবা প্রদান, প্রশিক্ষণ দান, হেল্প লাইন চালু করা, করোনা রোগী ছাড়াও অন্যান্য রোগীদের চিকিৎসাসেবা কার্যক্রম অব্যাহত রাখা ইত্যাদি বিষয়ে বিস্তারিত গুরুত্বের সাথে আলোচনা করা হয়।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় উপাচার্য অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া বলেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে চিকিৎসক সমাজ ও চিকিৎসা পেশার সাথে সংশ্লিষ্টরা বর্তমানে যুদ্ধে অবতীর্ণ হয়েছি। সবকিছু উপপেক্ষা করে জীবনকে বাজি রেখে চিকিৎসক সমাজ হিরোর মতো করোনা যুদ্ধকে মোকাবেলা করবে-এটাই আমার অনুরোধ। সংশ্লিষ্ট সকলে দায়িত্বশীল ও যথাযথ ভূমিকা পালন করলে এই সঙ্কট অবশ্যই কাটিয়ে উঠতে পারবো।

উপ-উপাচার্য (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. মুহাম্মদ রফিকুল আলম বলেন, আমাদের ছুটি নাই। করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলায় আমরা যুদ্ধে নেমেছি। করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে চলমান এই যুদ্ধে চিকিৎসক সমাজ অবশ্যই জয়ী হবে বলে আমার বিশ্বাস।      

শনিবার ওরাল হেলথ হ্যান্ড ফাউন্ডেশন-এর উদ্যোগে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের ডেন্টাল সার্জনগণ এবং ডেন্টাল আউটডোরে হ্যান্ড স্যানিটাইজার, পারসোনাল প্রোটেশকশন ইকুইপমেন্ট (পিপিই) বিতরণ করা হয়। এ উপলক্ষে এ ব্লকের চারতলায় আয়োজিত এক সংক্ষিপ্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ মেডিক্যাল এ্যাসোসিয়েশনের সম্মানিত সভাপতি ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা বিষয়ক সম্পাদক ডা. রোকেয়া সুলতানা, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ আতিকুর রহমান। ওরাল হেলথ ফাউন্ডেশনের সম্মানিত সভাপতি ও অত্র বিশ্ববিদ্যালয়ের কনজারভেটিভ ডেনটিসট্রি বিভাগের অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ আলী আসগর মোড়লের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন অত্র বিশ্ববিদ্যালয়ের ডেন্টাল অনুষদের সম্মানিত ডীন অধ্যাপক ডা. গাজী শামীম হাসান, ওরাল হেলথ ফাউন্ডেশনের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ডা. আশীষ কুমার বণিক, কোষাধ্যক্ষ ডা. হেলাল উদ্দিন প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশ মেডিক্যাল এ্যাসোসিয়েশনের সম্মানিত সভাপতি ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন বলেন, করোনা বিষয়টি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সার্বক্ষণিক মনিটরিং করছেন। করোনা মোকাবেলায় সচেতন হওয়ার সাথে সাথে রোগীদের সনাক্তকরণের জন্য করোনা পরীক্ষাকেও গুরুত্ব দিতে হবে। চট্টগ্রামে করোনা রোগী সনাক্তকরণের জন্য পরীক্ষার ব্যবস্থা করা হয়েছে। পুরাতন ৮টি মেডিক্যাল কলেজেও করোনা ভাইরাস সনাক্তে পরীক্ষার ব্যবস্থা করা হবে।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় উপাচার্য অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়–য়া বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, করোনা মোকাবেলা একটি যুদ্ধ। সবকিছু উপক্ষো করে চিকিৎসক সমাজকে এই যুদ্ধে হিরোর মতো ঝাঁপিয়ে পড়বে-এটাই আমার বিশ্বাস। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে খুব শীঘ্রই করোনা ভাইরাস সনাক্তকরণের জন্য পরীক্ষা কার্যক্রম শুরু হবে। 

এদিকে শনিবার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় উপাচার্য অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়ার কাছে তাঁর কার্যালয়ে বিসিএস বার ক্যাডারের চার কর্মকর্তা মুসফিকুর রহমান, নার্গিস আক্তার কলি, পল্লব কুমার দে, দিপঙ্কর চন্দ্র সরকার, হ্যান্ড গ্লোভস, চশমা, হেড কভার, স্যু কভার, পারসোনাল প্রোটেকটিভ গাউনসহ ১০০ পিস পিপিই হস্তান্তর করেন। এসময় সম্মানিত উপ-উপাচার্য (শিক্ষা) অধ্যাপক ডা. সাহানা আখতার রহমান, উপ-উপাচার্য (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. মুহাম্মদ রফিকুল আলম, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ আতিকুর রহমান, অনেকালজি বিভাগের শিক্ষক ও অত্র বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক সহযোগী অধ্যাপক ডা. জিল্লুর রহমান ভূঁইয়া উপস্থিত ছিলেন।

এছাড়া ডেজিগনেটেড রেফারেন্স ইনস্টিটিউট ফর ক্যামিক্যাল মেজারমেন্টস (ডিআরআইসিএম), বাংলাদেশ বিজ্ঞান ও শিল্প গবেষণা পরিষদ (বিসিএসআইআর)-এর পক্ষ থেকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালের জন্য হ্যান্ডরাব বি ক্লিন ২টি গ্যালন (১০ লিটার) প্রদান করেছে।

সর্বাধিক পঠিত খবর




করোনার বিরুদ্ধে একা লড়াই