শুক্রবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৭

English Version

চিকুনগুনিয়ার কারণে ব্যথা, কী করবেন

No icon অামার ডাক্তার

স্বাস্থ্য ডেস্ক: ১৯ জুন ২০১৭: ইদানীং চিকুনগুনিয়া জ্বরে আক্রান্তের হার বাড়ছে। চিকুনগুনিয়া জ্বর সাধারণত দুই থেকে পাঁচদিন থাকে। তবে জ্বরের কারণে হওয়া জয়েন্টের তীব্র ব্যথা থেকে যায় অনেকদিন। অনেকের ক্ষেত্রে এটি মাসব্যাপীও থাকতে পারে।

এই ব্যথা প্রতিরোধে কিছু ঘরোয়া উপায়ঃ-

বরফ: চিকুনগুনিয়ার কারণে হওয়া প্রদাহ ও জয়েন্টে ব্যথা কমাতে বরফ ব্যবহার করতে পারেন।

১. কয়েকটি বরফের টুকরো নিন। একে গুঁড়ো করুন।

২. একটি তোয়ালে দিয়ে গুঁড়োগুলো মুড়ে নিন।

৩. ব্যথার স্থানে তিন থেকে পাঁচ মিনিট এটি দিয়ে চাপ দিন। দিনে যতবার প্রয়োজন এভাবে করুন। তবে বরফ সরাসরি পায়ে লাগাবেন না। এতে টিস্যু ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে।

হলুদ: হলুদের মধ্যে রয়েছে কারকিউমিন। এতে রয়েছে শক্তিশালী অ্যান্টি অক্সিডেন্ট ও প্রদাহরোধী উপাদান। এগুলো ব্যথার সঙ্গে লড়াই করে।

১. আধা চা চামচ হলুদ এক গ্লাস গরম দুধে মেশান। এই দুধ দিনে দুবার পান করুন।

২. ব্যথা কমাতে চিকিৎসকের পরামর্শ নিয়ে কারকিউমিন সাপ্লিমেন্টও খেতে পারেন।

আদা: আদার মধ্যে রয়েছে প্রদাহরোধী ও ব্যথারোধী উপাদান। এগুলো জয়েন্টের ব্যথা কমাতে সাহায্য করে।

১. দিনে তিনবেলা আদা চা পান করুন।

২. আদার তেল দিয়ে আক্রান্ত স্থানে ম্যাসাজ করতে পারেন।   

ম্যাসাজ: ম্যাসাজ আরেকটি ঘরোয়া উপায় ব্যথা কমানোর। এতে রক্তের সঞ্চালন বাড়ে। আপনার পছন্দমতো তেল নিন। তেলটি হালকা গরম করে আক্রান্ত স্থানে ম্যাসাজ করুন। ম্যাসাজের সময় হাতের মধ্যে আক্রান্ত জায়গায় আস্তে আস্তে চাপ দিতে পারেন। কয়েক মিনিট এভাবে করুন। ব্যথা থাকলে কয়েকবার এটি করতে পারেন।

এ ছাড়া জয়েন্টের ব্যথায় চিকিৎসকের পরামর্শ নিয়ে ফিজিওথেরাপিও নিতে পারেন।

সর্বাধিক পঠিত খবর

ভারতে ভূমিষ্ঠ হল মৎস্যকন্যা !





শীতে দই খাওয়ার উপকারিতা

গ্যাস সমস্যায় যেসব খাওয়া নিষেধ



শিশুর মুখ থেকে বের হলো জীবত কই মাছ!