শনিবার, ০৬ জুন ২০২০

English Version

করোনাকালে টাসা 'র দরিদ্র মেধাবী ছাত্রছাত্রীদের পরিবারকে আর্থিক সাহায্য প্রদান

No icon সুসংবাদ

 ডেস্ক রিপোর্ট, ২২ মে’২০২০: বাংলাদেশের কিছু মেধাবী ব্যক্তিবর্গের সমন্বয়ে গঠিত ট্যালেন্ট এসিস্ট্যান্স স্কীম এলামনাই এসোসিয়েট লিমিটেড 'র উদ্যোগে করোনা মহামারীর এই সংকটকালে  কিছু  দরিদ্র মেধাবী ছাত্রছাত্রীদের পরিবারকে  আর্থিক সাহায্য  প্রদান করেছেন বলে জানিয়েছেন সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক ডা. অসিত মজুমদার। ঘরে বসে ছাত্রছাত্রীদের সঙ্গে মোবাইলে যোগাযোগ সমন্বয় ও ব্যাংকিং বিষয়ক পুরো কার্যক্রমের গুরুদায়িত্ব পালন করেন হিউম্যান ডেভেলপমেন্ট ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক ও সংগঠনের প্রধান উপদেষ্টা জনাব তাসনিম হাসান হাই এবং মধুমতি ব্যাংকের প্রথম ভাইস প্রেসিডেন্ট ও টাসার  যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জনাব মো. মোজাম্মেল হক। পুরো কার্যক্রমকে সাবলীলভাবে এগিয়ে নিতে সার্বক্ষণিক দিকনির্দেশনা দিয়ে খোঁজ খবর নিয়েছেন আরো দুই উপদেষ্টা নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের মলিকিউলার বায়োলজি এন্ড লাইফ সাইন্স এর অধ্যাপক জনাব ড.মো. আবদুল খালেক এবং ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশ এর মিডিয়া এন্ড  মাস কমিউনিকেশন বিভাগের  অধ্যাপক ড. মো. জাকির হোসন রাজু।

ডা. অসিত মজুমদার জানান,হিউম্যান ডেভেলপমেন্ট ফাউন্ডেশন প্রতিবছর  বাংলাদেশের  বেশ কিছু মেধাবী ছেলেমেয়েকে তাদের এসএসসি পরীক্ষার ফলাফলের ভিত্তিতে বাছাই করে "মেধা লালন প্রকল্প"তে অন্তর্ভুক্ত করে এবং তাদের ভবিষ্যত লেখাপড়া নিশ্চিত করার জন্য তাদেরকে নিয়মিত সুদমুক্ত শিক্ষাঋণ প্রদান করা হয়ে থাকে।  এই মুহূর্তে দরিদ্র পরিবারের ওপর 'করোনা-ভাইরাস' এসেছে "মরর ওপর খাড়ার ঘা" হয়ে। সাম্প্রতিক লক-ডাউন এর ফলে আয়-রোজগার বন্ধ হয়ে তাদের দিন কাটছে অর্ধাহারে অনাহারে।

ডা. অসিত মজুমদার আরো জানান, মেধা লালন প্রকল্পের প্রাক্তনীদের সংগঠন,  ট্যালেন্ট এসিস্ট্যান্স স্কীম এলামনাই এসোসিয়েট (টাসা) হাতিবান্ধাসহ অন্যান্য এলাকায় তাদের উত্তরসূরীদের করুণ দশা দেখে ব্যথিত ও মর্মাহত!  টাসা তাই উদ্যোগ নিয়েছে যাতে করে তাদেরকে অভুক্ত থাকতে না হয়, তার জন্য কিছু ফান্ড যোগাড় করবার। যা করার তা করতে হবে যার যার ঘরে বসে।  ইতিমধ্যেই টাসা’র ফেসবুক গ্রুপে একটা আবেদন করা হয়  যার যার সাধ্যানুযায়ী কিছু দান করে ফান্ড তৈরীর কাজটাকে এগিয়ে নেবার জন্য। আমরা ইতিমধ্যে ৪০ টি পরিবারকে  ৫ হাজার টাকা করে সর্বমোট দুইলাখ টাকা বিতরণ করেছি।

সর্বাধিক পঠিত খবর




করোনার বিরুদ্ধে একা লড়াই