মঙ্গলবার, ২১ আগস্ট ২০১৮

English Version

মাদকের গডফাদারদের সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিত করতে নতুন আইন

No icon হেলথ ক্রাইম

স্বাস্থ্য ডেস্ক: ১২ জুন ২০১৮: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল সোমবার জাতীয় সংসদ অধিবেশনে প্রশ্নোত্তর পর্বে বলেন, মাদকের গডফাদারদের আইনের আওতায় আনতে তালিকা ধরে অভিযান কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে।

তিনি আরো বলেন, মাদক কারবারে জড়িত মাস্টারমাইন্ডরা সহজে যাতে পার পেতে না পারে সে জন্য কঠোর ব্যবস্থা রেখে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন, ২০১৮-এর খসড়া প্রণয়ন করা হয়েছে। তাতে পৃষ্ঠপোষক, গডফাদারসহ মাদক সিন্ডিকেটের বিরুদ্ধে সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ডের বিধান রাখা হয়েছে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সংসদকে জানান, বিদ্যমান মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন, ১৯৯০-এ কোনো ব্যক্তির দখলে/কর্তৃত্বে/অধিকারে মাদকদ্রব্য না পাওয়া গেলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের সুযোগ নেই। ফলে মাদক কারবারে জড়িত মাস্টারমাইন্ডরা সহজেই পার পেয়ে যায়। এ কারণে নতুন আইনের খসড়া প্রণয়ন করা হয়েছে। এ আইনে মাদক কারবারে পৃষ্ঠপোষকতা দেওয়া ব্যক্তি এবং প্রতিষ্ঠানকেও আইনের আওতায় আনতে মানি লন্ডারিংসংক্রান্ত অপরাধ তদন্তে অধিদপ্তরের কর্মকর্তাদের ক্ষমতা দেওয়া হচ্ছে।

উল্লেখ্য, স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে অধিবেশনে এ সংক্রান্ত প্রশ্নটি উত্থাপন করেন সংরক্ষিত আসনের সদস্য বেগম পিনু খান।

সর্বাধিক পঠিত খবর


কিডনী ড্যামেজের লক্ষণ সমূহ

ডিনার দেরিতে করা মানেই ক্যান্সার!



বুকের ব্যথার কারণ সমূহ

জন্ডিসের কারণ ও প্রতিকার


পেটের চর্বি থেকে মুক্তির উপায়