বৃহস্পতিবার, ২৯ জুন ২০১৭

English Version

টেকনাফে সাড়ে ছয় লাখ ইয়াবা আটক

No icon হেলথ ক্রাইম

স্বাস্থ্য ডেস্ক: ১৮ এপ্রিল ২০১৭: কক্সবাজারের টেকনাফ সীমান্তে সোমবার বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) সদস্যদের আলাদা দুটি অভিযানে ৩০ লাখ ইয়াবা আটক করা হয়। এর মধ্যে একটি অভিযানে ইয়াবা পাচারকারীদের সঙ্গে বিজিবি সদস্যদের গোলাগুলি হয়েছে। এ ঘটনায় বিজিবির তিন সদস্য আহত হয়েছেন। ধরা পড়েছে তিন পাচারকারী।  

বিজিবি সূত্রে জানা যায়, টেকনাফ সদর ইউনিয়নের জৈল্যারদ্বীপ এলাকায় নাফ নদ হয়ে ইয়াবার একটি বড় চালান মিয়ানমার থেকে পাচারের পর বিজিবি সদস্যদের হাতে ধরা পড়ে। টেকনাফের বিজিবি ২ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল মো. আবুজার আল জাহিদ জানিয়েছেন, মিয়ানমার থেকে ইয়াবার একটি বড় চালান পাচারের খবর পেয়ে বিজিবির টহল দল ওত পেতে থাকে। সোমবার ভোরের দিকে পাচারকারীরা ইয়াবা নিয়ে আসার সময় বিজিবি টহল দলের উপস্থিতি টের পায়। এ সময় তারা ইয়াবাভর্তি বস্তা ফেলে পালিয়ে যায়। পরে পরিত্যক্ত অবস্থায় তিনটি বস্তায় পাঁচ লাখ ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। এসব ইয়াবার দাম অন্তত ১৫ কোটি টাকা।

অন্যদিকে টেকনাফের নাফ নদের তীরের নেটংপাড়া এলাকায় সোমবার সকালে আরো এক লাখ ৫০ হাজার ইয়াবার একটি চালান আটক করা হয়।

বিজিবি সূত্রে জানা গেছে, মিয়ানমার থেকে ইয়াবা বোঝাই একটি নৌকা তীরে ভিড়লে বিজিবি সদস্যরা চ্যালেঞ্জ করেন। এ সময় ইয়াবা পাচারকারীরা তাঁদের লক্ষ্য করে গুলি করে। বিজিবি সদস্যরা আত্মরক্ষার্থে পাল্টা ১০ রাউন্ড গুলি ছোড়েন।

বিজিবি সদস্যরা ধাওয়া করে তিন পাচারকারীকে আটক করেন। এ সময় পাচারকারীদের বৈঠার আঘাতে তিন বিজিবি সদস্য আহত হন। এক পাচারকারী নদীতে ঝাঁপ দিয়ে পালিয়ে যায়। বিজিবি সদস্যরা পরে নৌকা থেকে এক লাখ ৫০ হাজার ইয়াবা আটক করেন।

 

 

সর্বাধিক পঠিত খবর

রক্তনালীর ব্লক রোধে ৭ খাবার

পানপাতার আশ্চর্যজনক উপকারিতা!



মারা গেল ভিনগ্রহী সেই শিশু