শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০১৯

English Version

খাগড়াছড়িতে বেড়েছে শিশু রোগীর সংখ্যা

No icon শিশু কর্নার

স্বাস্থ্য ডেস্ক: ২৭ জুন’১৯: খাগড়াছড়ি জেলা আধুনিক সদর হাসপাতালে শিশু রোগীর সংখ্যা বেড়ে চলেছে। অতিরিক্ত রোগীর কারণে বেড না পেয়ে অনেককে হাসপাতালের বারান্দায় থেকে চিকিৎসা নিতে হচ্ছে। এর মধ্যে বেশির ভাগ রোগী  নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত।

চলতি মাসে সদর হাসপাতালে মোট ২৯১ জন শিশু ভর্তি হয়েছে। এর মধ্যে ৬৩ জন নবজাতক এবং ১৩ বছরের নিচের ২২৮ জন শিশু। এছাড়াও বহিঃবিভাগে চিকিৎসা নিতে আসাদের মধ্যে অধিকাংশ শিশু। যেখানে প্রতিদিন গড়ে ১শ’ থেকে ১২০ জন শিশু চিকিৎসা নিয়ে থাকে। মূলত আবহাওয়ার পরিবর্তন ও পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতার অভাবে এসব রোগীর সংখ্যা বাড়ছে বলে জানান চিকিৎসকরা।

এদিকে অল্প সংখ্যক চিকিৎসক দিয়ে পর্যাপ্ত চিকিৎসা দিতে হিমশিম খাচ্ছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

খাগড়াছড়ি আধুনিক সদর হাসপাতালের শিশু ওয়ার্ডের ইনচার্জ ও সিনিয়র স্টাফ নার্স বসুন্ধরা ত্রিপুরা বলেন, চলতি মাসের ২৬ জুন পর্যন্ত ২৯১ জন শিশু হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। যা স্বাভাবিক সংখ্যার চেয়ে অনেক বেশি। এর মধ্যে অনেকে চিকিৎসা নিয়ে ফিরে গেলেও অনেকে এখনো হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। প্রতিদিন ১৫ থেকে ১৮ জন রোগীকে ছাড়পত্র দেয়া হলেও আবার একই সংখ্যক রোগী ভর্তি হচ্ছে।

খাগড়াছড়ি সদর হাসপাতালের শিশু বিশেষজ্ঞ ডা. রাজেন্দ্র ত্রিপুরা বলেন, স্বাভাবিকের তুলনায় বর্তমান সময়ে রোগীর সংখ্যা বেড়েছে। মূলত পেট ব্যথা, জ্বর, শ্বাসকষ্ট, ডায়রিয়া, নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত শিশুরা হাসপাতালে ভর্তি হচ্ছে।

তিনি বলেন, ‘শিশুদের যত্ন নেয়ার ক্ষেত্রে মা’দের আরো সচেতন হতে হবে। খাওয়ানোর আগে হাত ধোয়া, খাবার ঢেকে রাখা, খাবার গরম করে খাওয়ানো এসব দিকে খেয়াল রাখতে হবে। এছাড়া শিশুদের ম্যালেরিয়া হচ্ছে জানিয়ে মশারি টাঙানো, বাড়ির আশপাশে ঝোপঝাড় পরিষ্কার করার পরামর্শ দেন।

সর্বাধিক পঠিত খবর









পিঠের মেদ দ্রুত কমানোর তিন উপায়