শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০১৯

English Version

শিশুর সুস্থভাবে বেড়ে ওঠা নিশ্চিত করতে হবে

No icon শিশু কর্নার

স্বাস্থ্য ডেস্ক ১২ জুলাই’১৯: শিশুদের জন্য নিরাপদ পরিবেশ ও সুস্থভাবে বেড়ে ওঠা নিশ্চিত করতে হবে বলে জানিয়েছেন মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব কামরুন নাহার।

তিনি বলেছেন, শিশুর উন্নয়নে মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয় বিভিন্ন উন্নয়ন সহযোগীদের সঙ্গে কাজ করছে। এছাড়া এ কাজের জন্য সংশ্লিষ্ট সবাইকে আরও এগিয়ে আসতে হবে।

বৃহস্পতিবার সচিবালয়ের মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে জাতিসংঘ শিশু তহবিল (ইউনিসেফ) বাংলাদেশের প্রতিনিধিদের সঙ্গে অংশীদারীত্বমূলক সভায় তিনি এ কথা বলেন।

সভাটিতে এক্সিলারেটিং প্রটেকশন ফর চিলড্রেন (এপিসি), কমিউনিকেশন ফর ডেভেলপমেন্ট, শিশুর প্রারম্ভিক যত্ন ও আগামীর শিশু এবং অন্যান্য কৌশলগত অংশীদারীত্ব বিষয়ে বিস্তর আলোচনা হয়।

এসময় সচিব কামরুন নাহার বলেন, নারী ও শিশুর উন্নয়নে মাতৃত্ব ভাতা, ল্যাকটেটিং ভাতা ও শিশুর প্রারম্ভিক যত্নের বিষয়ে ইউনিসেফ, ডব্লিউএফএ’র সঙ্গে কাজ করছে মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়। এছাড়া শিশুদের সুষম উন্নয়নের লক্ষে স্টকহোল্ডারদের নিয়ে সম্মিলিতভাবে আরও কাজ করার আশা ব্যক্ত করেন তিনি।

সভায় ইউনিসেফের প্রতিনিধি হাসিনা বেগম বলেন, শূন্য থেকে পাঁচ বছর বয়সী শিশুদের সেবা দেওয়ার ব্যবস্থা একই ছাতার নিচে আশা করা যেতে পারে। এর ফলে শিশুরা আরও বেশি উপকৃত হবে।

বাংলাদেশ শিশু একাডেমির পরিচালক আনজীর লিটন বলেন, শিশুদের জন্য নিরাপদ ইন্টারনেট সেবা সময়ের দাবি। তিনি এ বিষয়ে কাজ করার জন্য ইউনিসেফের সহযোগিতা চান।

সভায় মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব শেখ রফিকুল ইসলাম, অতিরিক্ত সচিব আইনুল কবীর, ইউনিসেফ বাংলাদেশের প্রতিনিধি নরিন খান, বিভিন্ন প্রকল্পের পরিচালক ও ইউনিসেফ বাংলাদেশের অন্যান্য প্রতিনিধি উপস্থিত ছিলেন।

সর্বাধিক পঠিত খবর








পিঠের মেদ দ্রুত কমানোর তিন উপায়