রবিবার, ২৬ জানুয়ারী ২০২০

English Version

বাংলাদেশে ব্যাপক হারে বেড়েছে শিশু নির্যাতন

বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীর ক্ষণগণনা
৬৪দিন
:
১১ঘণ্টা
:
৩৯মিনিট
:
৫৬সেকেন্ড
No icon শিশু কর্নার

স্বাস্থ্য ডেস্ক: ০৬ সেপ্টেম্বর ১৯: বাংলাদেশে শিশু ধর্ষণ, ধর্ষণের পর হত্যা এবং শিশুদের ওপর অন্যান্য যৌন নির্যাতনের ঘটনা ব্যাপক হারে বেড়ে চলেছে বলে শিশু ও নারী অধিকার নিয়ে কাজ করা বিভিন্ন সংগঠনের দেয়া তথ্যে উঠে এসেছে।

শিশু ধর্ষণের ঘটনায় শিশুদের শারীরিক, মানসিক এবং সামাজিক জীবনে স্বল্প ও দীর্ঘ মেয়াদী নেতিবাচক প্রভাব পড়ছে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। তাঁদের মতে ধর্ষকদের হাত থেকে শিশুদের রক্ষা করতে বিদ্যমান আইনের সংস্কার, বিচার কাজের গতি বৃদ্ধি এবং বিচারের রায়কে দ্রুত কার্যকর করার ব্যবস্থা নিতে হবে। সংবাদ মাধ্যমের এক খবরে বলা হয়েছে নারী ও শিশু নির্যাতন আইনের মামলায় সাজা হয় মাত্র ১.৩৬ শতাংশ আসামীর এবং বাকি ৯৮.৬৪ শতাংশ বেকসুর খালাস পান। এতে বলা হয়েছে, ঐ আইনের আওতায় ১ লাখ ৮০ হাজারের ওপর মামলা আদালতে বিচাররে অপেক্ষায় আছে।

শিশু অধিকার নিয়ে কাজ করা বিভিন্ন সংগঠনের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ২০১৯ সালের জুলাই মাস পর্যন্ত প্রথম সাত মাসে ৫৭২ জন শিশু ধর্ষণের শিকার হয়েছে যার মধ্যে ধর্ষণের পর হত্যা করা হয়েছে অন্তত ২৩ জনকে। এতে বল হয়েছে, ধর্ষণের চেষ্টা চালানো হয়েছে ৮৪ জন শিশুর ওপর এবং যৌন হয়রানির শিকার হয়েছে ৭৫ জন শিশু।

দেশে শিশু ধর্ষণের ঘটনা ব্যাপক ভাবে বেড়ে যাওয়ার বিষয়ে ভয়েস অব আমেরিকার সাথে কথা বলেছেন, শিশু অধিকার নিয়ে কাজ করা ২৭২ টি সংগঠনের শীর্ষ প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশ শিশু অধিকার ফোরাম বা বিএসএএফ এর নির্বাহী পরিচালক আব্দুস শাহিদ মাহমুদ।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন জনসচেতনতা, সামাজিক প্রতিরোধ, আইনের কঠোর প্রয়োগ, দ্রুত বিচার নিশ্চিত করা এবং প্রকৃত দোষীরা বিচারের হাত থেকে যাতে রেহাই না পায় তার ব্যবস্থা করতে পারলেই শিশুদের অনেকটাই সুরক্ষা দেয়া সম্ভব হবে।

 

সর্বাধিক পঠিত খবর






দেশে চিকিৎসা গবেষণা বাড়াতে হবে

ডিমেনসিয়া রোগীর আহার

জ্বর ঠোসা সারানোর সহজ উপায়