শুক্রবার, ২১ জুলাই ২০১৭

English Version

বিরল রোগে আক্রান্ত শিশু মুক্তামনি

No icon শিশু কর্নার

স্বাস্থ্য ডেস্ক: ০৯ জুলাই ২০১৭: বিরল এক ব্যাধির কবলে পড়েছে সাতক্ষীরার ১২ বছরের শিশু মুক্তামনি। সে সদর উপজেলার কামারবায়সা গ্রামের মুদি দোকানি ইব্রাহীম হোসেনের মেয়ে। দুই যমজ সন্তানের মধ্যে হীরামনি বড় ও মুক্তামনি ছোট।

মুক্তামনির বাবা ইব্রাহীম হোসেন জানান, জন্মের প্রথম দেড়  বছর ভালোই ছিল হীরামনি ও মুক্তামনি। কিছুদিন পর মুক্তা মনির ডানহাতে একটি ছোট মার্বেলের মতো গোটা দেখা দেয়। এর পর তা বাড়তে থাকে। সাথে চলে স্থানীয় চিকিৎসাও। দেখলে মনে হবে গাছের বাকলের (ছালের) মতো কিছুতে ছেয়ে গেছে পুরো হাতটি। দেহের সব অঙ্গের চেয়েও ভারি হয়ে উঠেছে। যন্ত্রণায় মুক্তামনি সব সময় অস্থির থাকে। ডাক্তার বলছেন এ ব্যাধি তার দেহের সর্বত্র ছড়িয়ে পড়ছে। তার শরীর শুকিয়ে যাচ্ছে। শুধু হাতের ভার বাড়ছে। দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে দেখানো হয়েছে মুক্তামনিকে । কেউ কোনো সঠিক চিকিৎসা দিতে পারেননি। হতাশ বাবা গত ছয় মাস যাবত চিকিৎসাবিহীন অবস্থায় মুক্তাকে বাড়িতে রেখে কেবল ড্রেসিং করছেন।

ইব্রাহীম আরো জানান, মেয়ের চিকিৎসার জন্য অনেক হাসপাতালে গিয়েছেন। এখন সর্বস্বান্ত হয়ে পড়েছেন। সঠিক চিকিৎসা পাননি। তবে ডাক্তার বলছেন রোগটি বিরল হলেও বাংলাদেশে এর চিকিৎসা রয়েছে। বাংলাদেশে বৃক্ষ মানবের সফল চিকিৎসা হয়েছে বলেও জানান ডাক্তার। তাই তিনি আবেগ জড়িত কণ্ঠে বলেন, প্রধানমন্ত্রী তার মেয়ের চিকিৎসার দায়িত্ব নিলে তিনি কৃতজ্ঞ থাকবেন।

যন্ত্রণায় কাতর মুক্তামনি জানায়, শুধু চুলকায় আর যন্ত্রণা করে। গরমে ঠান্ডায় বাড়ে। সে আক্ষেপ করে আরো বলে, বাইরের দুনিয়া আমি দেখতে পারি না। স্কুলে যেতে পারি না। খেলতে পারি না। আমার জীবনে কোনো আনন্দ নেই।

মুক্তুরউদ্দিন জানান, মুক্তামনির এ রোগটি বিরল। প্রাথমিকভাবে বলা যায় এর নাম ‘হাইপারকেরাটসিস’। এটি স্কিন ক্যান্সারও হতে পারে। বাংলাদেশে এর চিকিৎসা আছে। বঙ্গবন্ধু মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় অথবা ঢাকা মেডিক্যালে এর চিকিৎসা সম্ভব। তাই সরকারি সহায়তার পাশাপাশি কোনো সহূদয় ব্যক্তি এগিয়ে এলে মুক্তামনি এই বিরল রোগ থেকে মুক্তি পেতে পারে বলে আশা প্রকাশ করেন স্থানীয় এলাকাবাসী।

সর্বাধিক পঠিত খবর



মারা গেল ভিনগ্রহী সেই শিশু


টনসিল থেকে দূরে থাকার উপায়

থাইরয়েড ক্যানসারে উপসর্গগুলি জেনে নিন




সাবধান: ঘন ঘন গ্যাস হচ্ছে?