শনিবার, ২৮ মার্চ ২০২০

English Version

বিয়ের আদর্শ বয়স ২০-৩০

বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীর ক্ষণগণনা
৬৪দিন
:
১১ঘণ্টা
:
৩৯মিনিট
:
৫৬সেকেন্ড
No icon আরও...

স্বাস্থ্য ডেস্ক: ১০ এপ্রিল ২০১৭: বিয়েরও আদর্শ বয়স বের করেছেন গবেষকরা। তবে এ গবেষণা নারী-পুরুষের শারীরিক বেড়ে ওঠার ওপর ভিত্তি করে হয়নি; হয়েছে মানসিক ‘বেড়ে ওঠার’ ওপর ভিত্তি করে। তাতে দেখা গেছে, বিয়ে করার আদর্শ বয়স ২০ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে।

গবেষণাটি প্রকাশ করেছে ইনস্টিটিউট অব ফ্যামিলি স্টাডিজ নামের একটি প্রতিষ্ঠান। আর গবেষণার নেতৃত্ব দিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের উচাহ বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক নিকোলাস এইচ উলফিঙ্গার। ২০ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে কেন—এর কারণ হিসেবে তিনি বলছেন, ‘এ সময়ের মধ্যে যাঁরা বিয়ে করেন, দাম্পত্য জীবনে তাঁদের বিচ্ছেদের ঝুঁকি তুলনামূলক কম। আর যাঁরা ২৮ থেকে ৩২ বছর বয়সের মধ্যে বিয়ে করেন, তাঁদের মধ্যে বিচ্ছেদের আশঙ্কা বেশি। ’

গবেষণা অনুযায়ী, কিশোর বয়স পার করে ২০ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে বিয়ে করলে তালাকের আশঙ্কা কমে যায়। আবার এই আশঙ্কা বেড়ে যাবে ৩০ বছরের পর থেকে ৪০ বছরের মধ্যে বিয়ে করলে।

উলফিঙ্গার জানান, ৩২ বছরের পর বিয়ে করলে প্রতিবছরের জন্য বিচ্ছেদের আশঙ্কা ৫ শতাংশ হারে বাড়তে থাকে। যদিও ৩০ বছরের পর বিয়ে করার সিদ্ধান্তকে বেশির ভাগ মানুষই যথার্থ মনে করেন। তিনি আরো বলেন, ‘যাঁরা দেরিতে বিয়ে করেন, তাঁদের জীবনে সাফল্যও আসে দেরি করে। এমনকি সন্তান নেওয়ার ক্ষেত্রেও জটিলতা তৈরি হয়।

সূত্র : টাইমস অব ইন্ডিয়া

সর্বাধিক পঠিত খবর





করোনার প্রতিষেধক প্রস্তুত



চীনের পাঠানো চিকিৎসা সরঞ্জাম আসছে আজ