মঙ্গলবার, ২০ আগস্ট ২০১৯

English Version

ডেঙ্গু ভ্যাকসিনের ওপর ৯ বছর গবেষণা শেষে ভিয়েতনাম বলল ডেঙ্গভ্যাকসিয়া নিরাপদ

No icon ফার্মাসিউটিক্যালস

 স্বাস্থ্য ডেস্ক: ০১ আগস্ট১৯: ভিয়েতনামে ডেঙ্গু জ্বর নিয়ন্ত্রণ করতে একটি ভ্যাকসিনের ওপর করা গবেষণা সম্পন্ন হয়েছে। তবে ভ্যাকসিনটিকে বাজারে আনতে এবং সাধারণ মানুষের মধ্যে ছড়িয়ে দিতে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের অনুমতি লাগবে বলে জানিয়েছে দেশটির হো চি মিন সিটির পাস্তুর ইনস্টিটিউটের ভ্যাকসিন গবেষণা গ্রুপ।তারা যে ভ্যাকসিনটির ওপর গবেষণা চালিয়েছেন তার নাম ডেঙ্গভ্যাকসিয়া (Dengvaxia)। ভিয়েতনামের পাস্তুর ইনস্টিটিউটের ভ্যাকসিন গবেষণা গ্রুপের প্রধান ডা. ট্রান এনগোক হু জানিয়েছেন, ডেঙ্গভ্যাকসিয়া ফার্মাকোলজি, সুরক্ষা ও কার্যকারিতা সম্পর্কে মানুষ ও প্রাণীর উভয় ক্ষেত্রেই বিভিন্ন পর্যায়ে গবেষণা করা হয়েছে। এই ভ্যাকসিনটি ২০ বছর আগে ফ্রান্সভিত্তিক সানোফি পাস্তুর নামের একটি সংস্তা বাজারে নিয়ে আসে।

ভ্যাকসিনটির ওপর দু’টি গুরুত্বপূর্ণ গবেষণা চালানো হয়েছে। এটির সুরক্ষা ও কার্যকারিতা নিয়ে দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার পাচঁটি দেশ ইন্দোনেশিয়া, মালয়েশিয়া, ফিলিপাইন, থাইল্যান্ড এবং ভিয়েতনামসহ ১০ টি দেশে গবেষণা চালিয়ে শেষ করা হয়েছে। ভিয়েতনামে ২০১১ সাল থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত এ গবেষণা চালানো হয় বলে জানান ডা. ট্রান এনগোক হু।গবেষণা দলটি দু’হাজার তিনশ ৩৬ জন শিশুর ওপর এ গবেষণা চালান। তাদের সবাই দুই থেকে ১৪ বছর বয়সী ছিল। ডা. ট্রান এনগোক হু বলেন, ভিয়েতনামের যে শিশুরা পরীক্ষায় অংশ নিয়েছিল তারা কোনো ধরনের জটিলতা অনুভব ছাড়াই নিরাপদে রয়েছে।

অন্যান্য যে দেশগুলোতে ওই গবেষণা চালানো হয়; সে দেশগুলোতেও সফল হয়েছেন তারা। সেখানে দেখা যায়, ৯ থেকে ১৬ বছয় বয়সী যারা ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়েছিল তারা সবাই ভালো হয়ে ওঠেছে।এই গবষেণার ফলাফলের ওপর ভিত্তি করে সারাবিশ্বে সানোফি পাস্তুর ডেঙ্গভ্যাকসিয়া ভ্যাকসিনটি বিক্রয়ের জন্য নিবন্ধভুক্ত হয়। চলতি বছরের মে মাস পর্যন্ত সারাবিশ্বের ৫৪টি দেশে বিক্রয়ের জন্য লাইসেন্স পায় সংস্তাটি।ডা. ট্রান এনগোক হু বলেন, ভ্যাকসিনটি অনুমোদন পেলে ভিয়েতনামের বাজারে ন্যায্য মূল্যে সরবরাহ করার জন্য সানোফি পাস্তুরকে অনুরোধ করা হয়েছে।

সর্বাধিক পঠিত খবর




আঁচিল দূর করবেন যেভাবে

স্ট্রোকের প্রাথমিক তিন লক্ষণ



পিত্তথলিতে পাথর লক্ষণ ও করণীয়