রবিবার, ১২ জুলাই ২০২০

English Version

একমাসে ৭৫ কোটি ১৮ লক্ষাধিক টাকার মালামাল-মাদকদ্রব্য জব্দ করল বিজিবি

No icon ফার্মাসিউটিক্যালস

স্বাস্থ্য ডেস্ক- ০২ মার্চ, ২০২০: বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) অভিযানে ৭৫ কোটি ১৮ লক্ষাধিক টাকার চোরাচালানের মালামাল ও মাদকদ্রব্য জব্দ করা হয়েছে।

গত ফেব্রুয়ারি মাসে দেশের সীমান্ত এলাকাসহ অন্যান্য স্থানে অভিযান চালিয়ে সর্বমোট ৭৫ কোটি ১৮ লাখ ৫ হাজার টাকা মূল্যের বিভিন্ন প্রকারের চোরাচালান ও মাদক দ্রব্য জব্দ করতে সক্ষম হয়েছে। রোববার বিজিবির পক্ষ থেকে গণমাধ্যমকে এ তথ্য জানানো হয়।

জব্দকৃত মাদকের মধ্যে রয়েছে ৫,৮৯,৫৩৩ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট, ৪০,৪৯৪ বোতল ফেনসিডিল, ১০,৪৭১ বোতল বিদেশি মদ, ৭৮৮ লিটার বাংলা মদ, ৯৮৬ ক্যান বিয়ার, ৮৫৭ কেজি গাঁজা, ১ কেজি ২৭ গ্রাম হেরোইন, ১,০৭৩টি ইনজেকশন, ৮৪৩৯৮৭টি অন্যান্য ট্যাবলেট এবং ৯৮৪টি অ্যানেগ্রা/সেনেগ্রা ট্যাবলেট।

জব্দকৃত অন্যান্য চোরাচালান দ্রব্যের মধ্যে রয়েছে ৬ কেজি ১৪ গ্রাম স্বর্ণ, ১০১ কেজি ৭৫ গ্রাম রুপা, ৪,৯৩২টি ইমিটেশন গহনা, ১,৩৬,৮৮৪টি কসমেটিক্স সামগ্রী, ৯৬৫টি শাড়ি, ৯৬৪টি থ্রিপিস/শার্টপিস, ১,০০২টি তৈরি পোশাক, ৩৪২ মিটার থান কাপড়, ৯,১৮২ ঘনফুট কাঠ, ২,৫৯৬ কেজি চা পাতা, ১১টি ট্রাক, ৪টি পিকআপ, ৩০টি সিএনজিচালিত অটোরিকশা এবং ৭৬টি মোটর সাইকেল।

উদ্ধারকৃত অস্ত্রের মধ্যে রয়েছে ২টি পিস্তল, ১টি বন্দুক, ৪টি বিভিন্ন প্রকার গান এবং ৬ রাউণ্ড গুলি। এছাড়াও সীমান্তে বিজিবি’র অভিযানে ইয়াবাসহ বিভিন্ন প্রকার মাদক পাচার ও অন্যান্য চোরাচালানে জড়িত থাকার অভিযোগে ৩০৩ জন চোরাচালানী ধরা হয়েছে। এছাড়াও অবৈধভাবে সীমান্ত অতিক্রমের দায়ে ৫৪ জন বাংলাদেশি নাগরিক ও ৭৩ জন ভারতীয় নাগরিককে আটকের পর ৭ জনকে থানায় সোপর্দ করে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। আর ৬৬ জনকে ভারতে ফেরত প্রদান করা হয়েছে

সর্বাধিক পঠিত খবর