amarhealth.com
২৬ মে ’৭১: মুক্তিবাহিনী পাকবাহিনীর ওপর অকস্মাৎ আক্রমণ চালায়
Sunday, 26 May 2019 11:53 am
Reporter :
amarhealth.com

amarhealth.com

ডেস্ক রিপোর্ট: ২৬ মে ’১৯: মুক্তিবাহিনী কুমিল্লার জগন্নাথদীঘিতে পাকবাহিনীর অবস্থানের ওপর অকস্মাৎ আক্রমণ চালায়। অভিযানে পাকবাহিনীর ১৯ জন সৈন্য হতাহত হয়। এ অভিযানের নেতৃত্ব দেন লে. ইমামুজ্জামান।পাকিস্তানি সৈন্যরা ধরলা নদীর দক্ষিণ তীর থেকে গোলা বর্ষণ শুরু করে। এ আক্রমণে মুক্তিযোদ্ধারা ভূরুঙ্গামারীল দিকে ফিরে আসে এবং পাটেশ্বরী প্রতিরোধ ঘাঁটি ভেঙে যায়।কুড়িগ্রাম এলাকাতে মুক্তিবাহিনীর একটি টহলদার দলের সঙ্গে পাকবাহিনীর সংঘর্ষ হয়। সংঘর্ষে মুক্তিযোদ্ধারা পাকবাহিনীর বেশ ক্ষতিসাধন করে নিরাপদে ঘাঁটিতে ফিরে আসে।

কুড়িগ্রামে কালুর ঘাট নামক স্থানে মুক্তিযোদ্ধাদের ‘রেকি’ দলের সঙ্গে পাকবাহিনীর সম্মুখ সংঘর্ষ হয়। এ সংঘর্ষে পাকবাহিনীর ২ জন সৈন্য নিহত হয়। এদিন ছাতকে ১৮ জন যুবক মুক্তিযুদ্ধে যোগ দিতে যাওয়ার পথে বেতুরার পকির চেয়ারম্যান ও তার দলের হাতে ধরা পড়ে। এদেরকে তারা পাকহায়েনাদের হাতে তুলে দেয়। হায়েনার দল এই ১৮ যুবকের ১৭ জনকে ছাতক-গোবিন্দগঞ্জ রাস্তার মাধবপুরের নিকট সারি বেঁধে দাঁড় করিয়ে ব্রাশ ফায়ার করে। এতে সবাই নিহত হয়। বাকী একজন পালিয়ে জীবন বাঁচায়।