amarhealth.com
০৬ জুন, ১৯৭১: বাংলাদেশ সরকারের অস্থায়ী রাষ্ট্রপতি সৈয়দ নজরুল ইসলাম স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রে ভাষন দেন
Monday, 10 Jun 2019 11:03 am
Reporter :
amarhealth.com

amarhealth.com

ডেস্ক রিপোর্ট: ০৬ জুন ’১৯: গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের অস্থায়ী রাষ্ট্রপতি সৈয়দ নজরুল ইসলাম স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্র থেকে জাতির উদ্দেশে প্রদত্ত ভাষণে বলেন, বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও আটক সকল গণপ্রতিনিধির অবিলম্বে মুক্তিদান,

বাংলাদেশের মাটি থেকে পাকিস্তানি শাসকগোষ্ঠী কর্তৃক বাংলাদেশ থেকে অপহৃত ধনসম্পদ এবং বিগত আড়াই মাসে হানাদার বাহিনী বাংলাদেশের যে ক্ষতি করেছে, একটি আন্তর্জাতিক সংস্থার মাধ্যমে তা নির্ণয় করে লুন্ঠিত সম্পদ ফেরত ও পূর্ণ ক্ষতিপূরণের মাধ্যমেই কেবল রাজনৈতিক সমাধান আসতে পারে।

অস্থায়ী রাষ্ট্রপতি বলেন, বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রামে সকল বাঙালি-হিন্দু, মুসলিম, বৌদ্ধ, খৃষ্টান এক সাথে লড়েছেন, বুকের রক্ত ঢেলে দিয়ে বাংলার মাটি সিক্ত করে আমরা এটাই প্রমান করেছি, আমরা অসাম্প্রদায়িক, এদেশের প্রতিটি প্রাণ ঐক্যবদ্ধ, অভিন্ন। আমরা এক সাথে লড়েছি, জয়ী আমরা হবোই।

সৈয়দ নজরুল ইসলাম তাঁর ভাষণে প্রতিবেশী ভারতে আশ্রয়গ্রহণকারী বাঙালিদের সাহায্য করায় ভারত সরকারের কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। তিনি বলেন, ইয়াহিয়ার হানাদার বর্বর সৈনিকদের নির্মম অত্যাচারে অসংখ্য মানুষ দেশত্যাগ করে প্রতিবেশী রাষ্ট্রে চলে যেতে বাধ্য হয়েছে।

ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সরদার শরণ সিং বাংলাদেশের শরণার্থীদের জন্য আন্তর্জাতিক সাহায্যর আবেদন জানাতে বিদেশ সফরের শুরুতে মস্কো গমন করেন।

হল্যান্ড বাংলাদেশের শরণার্থীদের জন্য ১৫ লাখ গিল্ডারের খাদ্য ও ঔষধ সাহায্য প্রেরণ করে।