amarhealth.com
চর্বিযুক্ত খাবার ও ধূমপান বর্জনে হৃদরোগের ঝুঁকি হ্রাস সম্ভব
Monday, 30 Sep 2019 12:10 pm
Reporter :
amarhealth.com

amarhealth.com

স্বাস্থ্য ডেস্ক: ৩০ সেপ্টেম্বর’ ১৯: বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) উপাচার্য বলেছেন, প্রত্যেকে নিজের হার্টের যত্ন নিন এবং নিজের হার্টকে হিরোর মতো তৈরি করুন। চর্বিযুক্ত খাবার ও ধূমপান বর্জন, নিয়মিত হাঁটা ও ব্যায়ামের মাধ্যমে হৃদরোগের ঝুঁকি হ্রাস করা সম্ভব।

রোববার বিশ্ব হার্ট দিবস উপলক্ষে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

সেমিনারের সভাপতিত্ব করেন কর্ডিওলজি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. সৈয়দ আলী আহসান। এছাড়া বিশেষ অতিথি হিসেবে উপ-উপাচার্য (গবেষণা ও উন্নয়ন) অধ্যাপক ডা. মো. শহীদুল্লাহ সিকদার, উপ-উপাচার্য (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. মুহাম্মদ রফিকুল আলম, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ আতিকুর রহমান উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে বিশ্ব হার্ট দিবস উপলক্ষে সকাল ১০টায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের বটতলা থেকে একটি র‌্যালি বের করা হয়, র‌্যালিটি ক্যাম্পাসের বিভিন্ন অংশ প্রদক্ষিণ করে।

কার্ডিওলজি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. সৈয়দ আলী আহসান বলেন, পরিবারের প্রত্যেককে খাবারের প্রতি সচেতন হতে হবে। রান্নায় কম তেল ব্যবহার করতে হবে। টেনশন মুক্ত কাজের পরিবেশ নিশ্চিত করতে হবে। মানুষকে হাঁটার জন্য সুন্দর পরিবেশের ব্যবস্থা করে দিতে হবে।

তিনি আরও বলেন, ২০১২ সালের এক সমীক্ষায় দেখা গেছে, মানুষের মৃত্যুর অর্ধেক (৫০ শতাংশ) হচ্ছে নন কমিউনিকেবল ডিজিজে। হৃদরোগ তার মধ্যে অন্যতম। ২০২৫ সালের মধ্যে নন কমিউনিকেবল ডিজিজের মৃত্যুহার ২৫ শতাংশে কমিয়ে আনার জন্য সংশ্লিষ্ট সকলে তাদের কার্যক্রম শুরু করেছে।

ডা. সৈয়দ আলী আহসান বলেন, বর্তমানে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়সহ বাংলাদেশেই হৃদরোগের বিশ্বমানের চিকিৎসাসেবা রয়েছে। তাই হৃদরোগের চিকিৎসার জন্য বিদেশে যাওয়ার প্রয়োজন নেই।

সেমিনারে বক্তব্য রাখেন হার্ট ফেলিউর, রিহ্যাবিলিটেশন অ্যান্ড প্রিভেনশন কার্ডিওলজির হেড ও বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্রন্থাগারিক অধ্যাপক ডা. মো. হারিসুল হক। এছাড়া প্যানেল এক্সপার্টস হিসেবে অধ্যাপক ডা. সজল কৃষ্ণ ব্যানার্জি, অধ্যাপক ডা. মো. জাহিদ হোসেন, অধ্যাপক ডা. চৌধুরী মেশকাত আহমেদ, অধ্যাপক একেএম ফজলুর রহমান, অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন, অধ্যাপক ডা. মো. হারিসুল হক, অধ্যাপক ডা. এস এম মোস্তফা জামান, অধ্যাপক ডা. মনজুর মাহমুদ, সহযোগী অধ্যাপক ডা. এম এ মুকিত উপস্থিত ছিলেন।