amarhealth.com
জীবন ও স্বাস্থ্যের ক্ষতি হয় এমন কাজ শিশুদের দিয়ে করানো যাবে না, প্রধানমন্ত্রী
Wednesday, 09 Oct 2019 13:20 pm
Reporter :
amarhealth.com

amarhealth.com

স্বাস্থ্য ডেস্ক: ০৯ অক্টোবর’ ১৯: প্রাধনমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘আগে মায়েরা তাদের প্রতিবন্ধী ছেলেমেয়েদের কথা কাউকে সহজে বলতে পারতো না। এ নিয়ে মায়েদের নানা সমস্যায় পড়তে হতো। আওয়ামী লীগ সরকার এ ব্যাপারে সচেতন। বাংলাদেশে প্রায় ১৬ লাখ প্রতিবন্ধীকে আমরা মাসিক ভাতা দেওয়া শুরু করেছি, যাতে তাদের কেউ অবহেলা করতে না পারে। এছাড়া যেসব প্রতিবন্ধী পড়াশোনা করছে, তাদের বৃত্তি দেওয়ারও ব্যবস্থা করে দিয়েছি। শিশু অধিকার নিশ্চিতে প্রতিবন্ধী আইন তৈরি করে দিয়েছি।

বুধবার বিশ্ব শিশুদিবস ও অধিকার সপ্তাহ অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী আরো বলেন,  সন্ত্রাস, দুর্নীতি ও কুপ্রথা থেকে শিশুদেরকে দূরে রাখতে হবে। সেজন্য সরকার কাজ করে যাচ্ছে। শিশুদের জীবন ও স্বাস্থ্যের ক্ষতি হয় এমন কোন কাজ তাদেরকে দিয়ে করা যাবে না এজন্য সরকার নতুন আইন প্রণয়ন করতে যাচ্ছে।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘আমরা শিশু শ্রম নীতি তৈরি করেছি। শিশুরা এমন কেন ঝুঁকির কাজ করবে না যাতে তাদের স্বাস্থ্যের হানি হয়। আমরা শিশু নির্যাতন বন্ধে নানা পদক্ষেপ নিয়েছি। সেগুলো বাস্তবায়ন করা হচ্ছে।

জাতির পিতার করে যাওয়া শিশু অধিকার আইনের আলোকেই তার সরকার ২০১১ সালে জাতীয় শিশু নীতিমালা প্রণয়ন করেছে উল্লেখ করে শেখ হাসিনা বলেন, ‘এর পাশাপাশি শিশুদের শিক্ষা, খেলাধুলা, শরীরচর্চা, সাংস্কৃতিক চর্চা—সবদিকে যেন তাদের পারদর্শিতা গড়ে ওঠে, সেদিকে আমরা দৃষ্টি দিয়েছি। আমরা ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ে তুলে শিশুদের আধুনিক প্রযুক্তি দক্ষতাসম্পন্ন করে গড়ে তোলার উদ্যোগ গ্রহণ করেছি। আওয়ামী লীগ সরকার দেশের প্রতি জেলায় ভাষা প্রশিক্ষণ ল্যাবসহ শিশুদের প্রযুক্তি শিক্ষায় দক্ষ করে গড়ে তুলতে শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাব প্রতিষ্ঠা করেছে।