বৃহস্পতিবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৯

English Version

০৮ অক্টোবর’ ৭১: মুক্তিবাহিনী পাকসেনাদের অবস্থানের ওপর অতর্কিত আক্রমণ চালায়

No icon স্পট লাইট

ডেস্ক রিপোর্ট: ০৮ অক্টোবর’ ১৯: ১৯৭১ সালের ০৮ অক্টোবর ২নং সেক্টরে মুক্তিবাহিনী পাকসেনাদের শালতা নদী মূল ঘাঁটির চারটি অবস্থানের ওপর তিন দিক থেকে অতর্কিত আক্রমণ চালায়। মুক্তিযোদ্ধাদের তীব্র আক্রমণে পাকসেনারা তাদের দু’টি অবস্থান ত্যাগ করে অবশিষ্ট ঘাঁটি দু’টিতে আশ্রয় নেয়। সুবেদার বেলায়েত অতি দ্রুত তাঁর বাহিনী নিয়ে শালদা নদী অতিক্রম করে পাকসেনাদের পরিত্যাক্ত ব্যাংকারগুলোতে অবস্থান নেন। এতে পাকসৈন্যরা বাজার এলাকা থেকে শালদা নদী রেলওয়ে স্টেশনের অবস্থানের সঙ্গে সংযোগ হারিয়ে ফেলে। এই যুদ্ধে শালদা নদী রেলওয়ে স্টেশন হানাদার মুক্ত হয়।

গোপালপুর থানা শত্রুমুক্ত করার জন্য মুক্তিবাহিনী দিনভর মর্টারের গোলা নিক্ষেপ করেও থানার পতন ঘটাতে না পারলেও মেজর হাকিম পুরো থানা রেকি করেন। হানাদারদের অবস্থান রেকি করে ফেরার সময় মেজর হাকিমের কোম্পানীর ১২/১৩ বছরের এক ক্ষুদে মুক্তিযোদ্ধা ভুলু ছদ্মবেশে হানাদারদের ঘাঁটিতে গ্রেনেড আক্রমণ চালায় এতে আটজন হানাদার সৈন্য নিহত হয়।

৮নং সেক্টরে মুক্তিবাহিনী মথুরানগরে অবস্থানগত পাকবাহিনীর দুই প্লাটুন সৈন্যকে আক্রমন করে। এতে পাকসেনারা পাল্টা আক্রমণ চালালে উভয়পক্ষের মধ্যে চার ঘন্টা গুলিবিনিময় হয়। এই সংঘর্ষে পাকবাহিনীর ১৫ জন সৈন্য নিহত ও ৪ জন আহত হয়। অপরদিকে৩ জন বীর মুক্তিযোদ্ধা আহত হন।

সর্বাধিক পঠিত খবর

গাড়িতে চড়লে বমি ভাব জেনে নিন সমাধান


লিভারকে পরিষ্কার রাখে যে ৩টি খাবার


লিভার পরিষ্কার রাখে ৩টি খাবার




হঠাৎ বিকট শব্দ, ঝরে গেল সাত শিশুর প্রাণ