বৃহস্পতিবার, ২১ নভেম্বর ২০১৯

English Version

১৬ অক্টোবর, ১৯৭১: প্রেসিডেন্ট ইয়াহিয়া ও সোভিয়েত প্রেসিডেন্ট নিকোলাই পদগর্নির মধ্যে আলোচনা হয়।

No icon স্পট লাইট

ডেস্ক রিপোর্ট: ১৬ অক্টোবর’ ১৯: সকালে তেহরানে পাকিস্তান প্রেসিডেন্ট ইয়াহিয়া ও সোভিয়েত প্রেসিডেন্ট নিকোলাই পদগর্নির মধ্যে দু'ঘন্টা স্থায়ী আলোচনা হয়। প্রেসিডেন্ট ইয়াহিয়া নিকোলাই পদগর্নির কাছে পাকিস্তানের অখন্ডতা ও সংহতি রক্ষায় প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবার দাবি জানায়। নির্বাচন কমিশন এক প্রেসনোটে উপ-নির্বাচনের প্রতীকের নাম ঘোষণা করে। ঘোষণায় আরো বলা হয়, গত নির্বাচনে যে দল যে প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছিলো, এবারেও সেই প্রতীকই বরাদ্দ থাকবে।

আলমের নেতৃত্বে নৌ-কামান্ডোরা চালনা বন্দরে দুঃসাহসিক অভিযান চালায়। এই অভিযানে ফ্রগম্যানরা চারটি জাহাজ ধ্বংস করে। জাহাজ চারটির মধ্যে ‘লাইটনিং’ ও ‘আল-মুরতজা’-র নাম উল্লেখযোগ্য। এই অপারেশনে ফ্রগম্যান আনোয়ার অসীম সাহসিকতা প্রদর্শন করেন।

দিনাজপুরে মুক্তিবাহিনী মর্টারের সাহায্যে বোয়ালগঞ্জে অবস্থানরত পাকসেনাদের ওপর অতর্কিত আক্রমণ চালায়। এই আক্রমণে পাকবাহিনীর ১৭ জন সৈন্য নিহত হয়। রাতে আরেক সংঘর্ষে পাকবাহিনীর ১০ জন সৈন্য নিহত হয়।

মুক্তিবাহিনীর জঙ্গী দল লালমনিরহাট ও ঠাকুরগাঁওয়ে পাকবাহিনীর অবস্থানের ওপর তীব্র গোলাবর্ষণ করে। সফল অভিযান শেষে মুক্তিযোদ্ধাদল নিরাপদে নিজেদের ঘাঁটিতে ফিরে আসে।

ঢাকায় মুক্তিযুদ্ধ বিরোধী শক্তির তস্কররা বিচারপতি আবু সাইদ চৌধুরীর ময়মনসিংহ রোডস্থ তালাবদ্ধ বাসভবনে আগুন লাগিয়ে দেয়।

সর্বাধিক পঠিত খবর

গাড়িতে চড়লে বমি ভাব জেনে নিন সমাধান



লিভার পরিষ্কার রাখে ৩টি খাবার



হঠাৎ বিকট শব্দ, ঝরে গেল সাত শিশুর প্রাণ

আলসারের লক্ষণগুলো জেনে নিন