শনিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২০

English Version

বিশ্বের ১৩ দেশে ছড়িয়ে পড়ছে ভয়ঙ্কর করোনাভাইরাস

বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীর ক্ষণগণনা
৬৪দিন
:
১১ঘণ্টা
:
৩৯মিনিট
:
৫৬সেকেন্ড
No icon স্পট লাইট

স্বাস্থ্য ডেস্ক: ২৬ জানুয়ারি ২০২০: চীনের হুবেই প্রদেশের রাজধানী উহান থেকে ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাস ইতোমধ্যে চীনসহ ১৩টি দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়েছে। চীনের তথ্যমতে দেশটিতে এখন পর্যন্ত এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ১৬১০ জন। এদের মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ৫৪ জনের। আক্রান্তদের প্রায় সবাই উহানে বা এর কাছাকাছি স্থানে ছিলেন। তবে এক চিকিৎসাকর্মী দাবি করেছেন এ ভাইরাসে চীনের এক লক্ষাধিক মানুষ আক্রান্ত হয়েছে, যার সংখ্যা গোপন করেছে চীন সরকার।

উহান শহরে প্রথম লক্ষ্মণ দেখা যাওয়ার পর এখন পর্যন্ত করোনাভাইরাসে ৫৬ জন মারা গেছে এবং হাজার হাজার মানুষ সংক্রমিত হয়েছে।

এদিকে চীনের উহান শহরের হাসপাতালে কর্মরত এক নার্সের দাবি, সেখানে ইতোমধ্যেই ৯০ হাজার মানুষ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। মাস্ক পরে হাসপাতালে রোগীদের চিকিৎসায় নিয়োজিত রয়েছেন ওই নার্স। তিনি বলছেন, সরকারিভাবে যে সংখ্যা বলা হচ্ছে প্রকৃতপক্ষে আক্রান্তের সংখ্যা আরও কয়েক গুণ বেশি। যদিও এ তথ্য অস্বীকার করেছেন চীনের সরকারি কর্মকর্তারা। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রতিবেদনে এ তথ্যের উল্লেখ নেই।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মতে, এ ভাইরাসে আক্রান্তদের মধ্যে সর্বোচ্চ ১২৯৭ জন চীনে (হংকং, ম্যাকাও ও তাইপেসহ) এছাড়া আমেরিকায় দুইজন, ফ্রান্সে ৩ জন কোরিয়ায় ২ জন ভিয়েতনামে ২ জন থাইল্যান্ডে ৪ জন সিঙ্গাপুরে ৩ জন, অস্ট্রেলিয়া ৩, জাপানে ৩ জন সর্বশেষ নেপালে একজনকে সনাক্ত করা হয়েছে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রতিবেদনে হংকং ম্যাকাও তাইপে এই তিন দেশ কে চীনের আওতায় রেখেছে। সেই হিসেবে তারা ১০টি দেশ বলছে। আর এই তিনটিকে হিসাব করলে এ ভাইরাসে আক্রান্ত ব্যক্তি পাওয়া দেশ ও অঞ্চলের সংখ্যা ১৩টি। এ কারণে চীনা নতুন বছর উদযাপনের আনুষ্ঠানিক সব অনুষ্ঠান বাতিল করা হয়েছে বিভিন্ন এলাকায়।

ফ্রান্স

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মতে, ফ্রান্সে তিনজন করোনা ভাইরাস আক্রান্ত হয়েছে। তাদের মধ্যে ৪৮ বছর বয়সী এক ব্যক্তি রয়েছেন, যিনি সম্প্রতি উহান ভ্রমণ করেছেন। অন্য দুই ব্যক্তিও সম্প্রতি চীন ভ্রমণ করেছেন।

জাপান

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা করোনা ভাইরাসে এ পর্যন্ত জাপানে তিনজন আক্রান্ত হওয়ার খবর নিশ্চিত করেছে। এর মধ্যে তিনজনই সম্প্রতি উহান ভ্রমণ করেছেন।

অস্ট্রেলিয়া

শনিবার অস্ট্রেলিয়ায় প্রথমবারের মতো একজন ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার খবর নিশ্চিত করেছে কর্তৃপক্ষ। আক্রান্ত ব্যক্তি সম্প্রতি উহান ভ্রমণ করেছেন। পরে রোববার সিডনিতে আরও তিনজনের মধ্যে ভাইরাসে সংক্রমিত হওয়ার লক্ষণ দেখা গেছে বলে নিশ্চিত করেছে কর্তৃপক্ষ।

মালয়েশিয়া

মালয়েশিয়ায় তিনজন এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। তিনজনই সম্প্রতি উহান ভ্রমণ করেছে।

নেপাল

নেপালে ৩২ বছর বয়সী এক ব্যক্তি এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন যিনি উহান থেকে দেশটিতে গিয়েছিলেন। সুস্থ হওয়ার পর তাকে হাসপাতাল ছাড়ার অনুমতি দেওয়া হয়েছে।

সিঙ্গাপুর

সিঙ্গাপুরে অন্তত তিনজন নতুন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। তাদের মধ্যে রয়েছেন ৬৬ বছর বয়সী এক বৃদ্ধ ও তার ছেলে (৩৭) এবং ৫২ বছর বয়সী এক নারী। তারা সবাই সম্প্রতি উহান ভ্রমণ করেছেন।

দক্ষিণ কোরিয়া

দক্ষিণ কোরিয়ায় দুজন এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। দুজনই উহান ভ্রমণ করে দেশটিতে গিয়েছিলেন। চিকিৎসা দেওয়ার পর দুজনই কিছুটা স্থিতিশীল রয়েছেন।

তাইওয়ান

তাওয়ানে এ পর্যন্ত তিনজন নতুন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এ ঘটনার পর উহান ভ্রমণে বিধিনিষেধ আরোপ করে দেশটি।

থাইল্যান্ড

থাইল্যান্ডে পাঁচজন এ ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার খবর নিশ্চিত করা হয়েছে। তাদের মধ্যে চারজন চীনা নাগরিক যারা উহান থেকে এসেছেন এবং অপর একজন সম্প্রতি উহান ভ্রমণ করেছেন।

কানাডা

শনিবার কানাডার রাজধানী টরোন্টোর এক হাসপাতাল থেকে দেশটিতে করোনাভাইরাসে একজন আক্রান্ত হওয়ার খবর নিশ্চিত করা হয়। কর্মকর্তারা জানান, আক্রান্ত ব্যক্তির বয়স পঞ্চাশোর্ধ্ব। সম্প্রতি তিনি উহান ভ্রমণ করে ২৩ জানুয়ারি টরোন্টো পৌঁছান।

যুক্তরাষ্ট্র

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মতে যুক্তরাষ্ট্রে এ পর্যন্ত দুজন আক্রান্ত হয়েছে। এ খবর নিশ্চিত করেছেন দেশটির স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা। চিকিৎসা দেওয়ার পর তাদের অবস্থা স্থিতিশীল রয়েছে।

ভিয়েতনাম

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা নিশ্চিত করেছে ভিয়েতনামে এক ব্যক্তি ও তার ছেলে এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। ওই ব্যক্তি সম্প্রতি উহান ভ্রমণ করেছেন। তার সংস্পর্শে এসেই তার ছেলেও ভাইরাসে সংক্রমিত হয়েছেন।

সর্বাধিক পঠিত খবর





বিষধর সাপ থেকে ছড়াচ্ছে করোনা ভাইরাস!




করোনার ওষুধ আবিষ্কার, বাজারে ছাড়ার অনুমতি