রবিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৭

English Version

বেশি বেশি হাসুন, সুস্থ্য থাকুন

No icon হেলথ টিপস

স্বাস্থ্য ডেস্ক: ১৪ জুলাই ২০১৭: হাস্যজ্জ্বল মানুষ সবার প্রিয়। মিষ্টি হাসির বিনিময়ে মন কাড়া যায় অনেক হৃদয়ের। আমাদের একজনের হাসির সাথে আরেকজনের হাসি কখনই মিল থাকে না। প্রত্যেকের হাসির ভিতর একটা পার্থক্য রয়েছে। পার্থক্যের কারণ হতে পারে দাঁত বা ঠোঁটের পার্থক্যের কারণে। কিন্তু হাসি সম্পর্কে কিছু উপকারিতা আছে যা আপনি জানেন না।

এন্ডোরফিন নিঃসৃত হয়ঃ আপনি যখন হাসেন, এমনকি জোর করে হলেও যদি একটু হাসেন, তাহলে আপনার শরীরে ভালো থাকার হরমোন এন্ডোরফিন নিঃসৃত হয়, যা আপনাকে ভালো থাকার অনুভূতি দেয়।

রক্তচাপ কমে যায়ঃ কানাডিয়ান ফ্যামিলি ফিজিশিয়ান নামক একটি সাময়িকীতে প্রকাশিত প্রতিবেদনে পরামর্শ দেয়া হয় যে, হাসলে এন্ডোরফিনের মাত্রা বৃদ্ধি পাওয়ার পাশাপাশি রক্তচাপ ও কমে যায়। রক্তচাপ কম থাকা মানে হৃদরোগের ঝুঁকি কমে যাওয়া। হাসি জীবন রক্ষা করতে পারে এটা বলাই যেতে পারে।

হাসলে মুখের ব্যায়াম হয়ঃ যদি ডাবল চিন এর সমস্যা দেখা দেয় তাহলে হাসির মাধ্যমে এর প্রতিকার করা যায়। যুক্তরাজ্যের ফেস ইয়োগা এক্সপার্ট ড্যানিয়েল কলিন্স বলেন মুখের মাড়ির ২৬টি পেশীরই ভালো ব্যায়াম হয় হাসলে।

মুখের স্বাস্থ্যের উন্নতিঃ সার্বিক স্বাস্থ্যের জন্য বা ত্বকের স্বাস্থ্যের জন্য যেমন সাপ্লিমেন্ট আছে তেমনি হাসির জন্য ও সাপ্লিমেন্ট পাওয়া যায়। নিউ ইয়র্কের দন্ত চিকিৎসক ডা. নিকিতা গয়াল বলেন, হাসির সাপ্লিমেন্টগুলো অ্যান্টিঅক্সিডেন্টে সমৃদ্ধ যা ইমিউন সিস্টেমকে উদ্দীপিত করে মুখের সার্বিক স্বাস্থ্যকে শক্তিশালী করার জন্য।

ফুসফুসের আকৃতি বৃদ্ধি পায়ঃ হাসলে ফুসফুসের আকৃতি বৃদ্ধি পায়। ফলে ফুসফুস ধারন করতে পারে অনেকটা বেশি অক্সিজেন। একবার হাসলে শরীরের ছোটখাটো হলেও বেশ ভাল একটা ব্যায়াম হয়ে যায়। গবেষকদের মতে একবার হাসলে মানুষের শরীরের ০.০০৩ শতাংশ ক্যালোরি খরচ হয়। ফলে কমে যায় ওজনও।

সর্বাধিক পঠিত খবর


ঘাড়-পিঠের ব্যাথার কারণ ও প্রতিকার


কি খেলে ডায়াবেটিসের ঝুঁকি কমে?



ডায়াবেটিসের আশঙ্কা কমে হাত দিয়ে খেলে!

ভাল ঘুম চান? বেডরুমে রাখুন এই গাছ

ডায়াবেটিসের ঝুঁকি কমায় ডাল

প্রাকৃতিক ভাবে রক্তচাপ কমান