শনিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২০

English Version

ভেনেজুয়েলায় খাদ্য ও ওষুধ সরবরাহ নিশ্চিত করতে সেনা মোতায়েন

বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীর ক্ষণগণনা
৬৪দিন
:
১১ঘণ্টা
:
৩৯মিনিট
:
৫৬সেকেন্ড
No icon লেখালেখি

স্বাস্থ্য ডেস্ক- ১৪ জুলাই, ২০১৬: খাদ্য ও ওষুধ সরবরাহ নিশ্চিত করার চেষ্টায় ভেনেজুয়েলার পাঁচটি বন্দরের নিয়ন্ত্রণ নিয়েছে দেশটির সেনাবাহিনী। এর আগে এক ডিক্রিতে প্রেসিডেন্ট নিকোলাস মাদুরো সেনাবাহিনীকে খাদ্য প্রক্রিয়াকরণ কারখানাগুলো পর্যবেক্ষণ এবং খাদ্য সামগ্রীসমূহের উৎপাদন ও বন্টন সমন্বয় করার আদেশ দেন। উল্লেখ্য, বিশ্বের বৃহত্তম তেলের রিজার্ভ থাকা সত্ত্বেও ভেনেজুয়েলা গভীর অর্থনৈতিক সংকটের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে। নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যগুলো খুঁজে পাওয়া অব্যাহতভাবে কঠিন হচ্ছে এবং বহু মানুষ বলছেন, তারা তাদের পরিবারকে খাবারের জোগান দিতে আপ্রাণ চেষ্টা করছেন।

গুয়ান্তা, লা গুয়েইরা, পুয়ের্তো ক্যবেল্লো, ম্যারাক্যাইবো এবং গুয়ামাচি বন্দরগুলো সেনাবাহিনীর দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হবে বলে গত মঙ্গলবার রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে ঘোষণা করেন মাদুরো। তিনি ‘গ্রেট মিশন অব সভরেইন সাপ্লাইং’ নামে একটি সরকারি উদ্যোগের সূচনা করেন, যেটি পরিচালিত হবে প্রতিরক্ষামন্ত্রী জেনারেল ভ্লাদিমির প্যাদরিনোর নেতৃত্বে। কীভাবে খাদ্য ও ঔষধ উৎপাদন, বন্টন ও বিক্রি হয় তা পর্যবেক্ষণ এবং সমন্বয় করার বিষয়টিও এই উদ্যোগের মধ্যে রয়েছে।

মাদুরো বলেন, এই পদক্ষেপগুলো মার্কিন মদদপুষ্ট রাজনৈতিক শত্রু এবং ব্যবসায়ীদের সৃষ্ট ‘অর্থনৈতিক যুদ্ধের’ বিরুদ্ধে একটি লড়াই। তবে সরকার ঠিক মতো দেশ চালাতে পারছে না—একথা বলে বিরোধীরা প্রেসিডেন্টের পদত্যাগের আহবান জানিয়েছেন। এদিকে খাদ্য ব্যবস্থাপনায় সেনাবাহিনীর অংশগ্রহণ নিয়ে দ্য ভেনেজুয়েলান বিশপ কনফারেন্স বলেছে, সামরিক বাহিনীর আগমন ‘শান্তি ও স্থিতিশীলতার জন্য একটি হুমকি’।

সর্বাধিক পঠিত খবর






করোনার ওষুধ আবিষ্কার, বাজারে ছাড়ার অনুমতি

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে করণীয়

মোবাইল থেকেও ছড়াতে পারে করোনাভাইরাস!

ধূমপান ছাড়লে সেরে ওঠে ফুসফুস